স্বাধীন রাষ্ট্রবর্গের আন্তঃ-পার্লামেন্টারী অ্যাসেম্বলির পর্যবেক্ষকরা রাশিয়ায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে কোনো গুরুতর নিয়ম লঙ্ঘন নথিভুক্ত করতে পারেন নি. এই পর্যবেক্ষক দলের সঙ্গতি-সাধক ভাদিম পপোভ জানিয়েছেন যে, তাঁরা দেশের ১১টি অঞ্চলে ৩৫০টি নির্বাচনী কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন. এ সব জায়গায় ছোট-খাটো টেকনিক্যাল ভুল-ভ্রান্তি পেয়েছেন, তবে তা নাগরিকদের মত প্রকাশ প্রভাবিত করে না. স্বাধীন বিদেশী মনিটরিং গ্রুপের প্রতিনিধিরা কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিশনের তথ্য কেন্দ্রে ব্রিফিংয়ে বলেছেন যে, নির্বাচন আন্তর্জাতিক মানের সাথে সুসঙ্গত ছিল. সার্বিয়ার পর্যবেক্ষক জোর দিয়ে বলেন, “বলতে পারি যে, সারা পৃথিবীর সমস্ত দেশের আজ রাশিয়ার দৃষ্টান্ত গ্রহণ করা উচিত্”. ইতালির প্রতিনিধি নির্বাচনকে “অদ্ভুত এবং গণতান্ত্রিক” বলে অভিহিত করেছেন. হাঙ্গেরীর প্রতিনিধি জানিয়েছেন যে, ইউরো-পার্লামেন্টের নির্বাচনে রাশিয়ার প্রকৌশল ব্যবহারের জন্য ইউরো-পার্লামেন্টকে সুপারিশ করতে চান. ফিনল্যান্ডের মানব-অধিকার রক্ষক ইওন হেলেউইগ উল্লেখ করেন যে, রাশিয়ার নির্বাচনের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ করার অভিযান ব্যর্থ হয়েছে. ঐ দেশেরই অন্য প্রতিনিধি ইওহান বার্কম্যান বলেন যে, পশ্চিমী প্রচার মাধ্যমগুলি নির্বাচনে সিস্টেমেটিক নিয়ম লঙ্ঘনের কথা বলছে, কিন্তু, আমরা উল্টোটাই দেখতে পেয়েছি.