রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, যে উত্তর কোরিয়ার পারমানবিক উচ্চাকাঙ্খা রাশিয়ার পক্ষে গ্রহণযোগ্য নয়, তবে তিনি বিদেশী শরিকদের উত্তর কোরিয়ার নতুন নেতার সহনশীলতা পরখ করে দেখা থেকেও বিরত থাকার আহ্বাণ জানিয়েছেন. পুতিন স্বীকার করেছেন, যে কোরিয়ার পারমানবিক সমস্যাকে ঘিরে উদ্ভূত পরিস্থিতি ইরানের চেয়ে কম গুরুতর নয়. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে পিয়ং-ইয়ং অপ্রসারনের ব্যবস্থা লঙ্ঘন করে, প্রকাশ্যে তার সামরিক পরমানু হেফাজতে রাখার অধিকারের কথা বলছে, দুই-দুইবার পারমানবিক বিস্ফোরক পরীক্ষা করেছে. পুতিন আরও বলেছেন, যে “দেখেশুনে মনে হচ্ছে আমাদের বহু শরিকেরই এইধরনের দৃষ্টিভঙ্গী পছন্দসই নয়. আমার দৃঢ়বিশ্বাস, যে এখন অত্যন্ত পরিপাটি হওয়া দরকার”. উত্তর কোরিয়ার নবনিযুক্ত নেতার সহনশীলতা পরখ করে দেখার চেষ্টা অনুমোদন করা যায় না, বিশেষতঃ অদূরদর্শী প্রতিব্যবস্থা গ্রহণে তা প্ররোচনা যুগিয়েছে – বলেছেন পুতিন. প্রধানমন্ত্রী “প্রতিবেশীদের কেউ বেছে নেয় না”, এই মন্তব্য করে আরো বলেছেন, যে রাশিয়া উত্তর কোরিয়ার সাথে সংলাপ চালিয়ে যেতে থাকবে, সুপ্রতিবেশী সুলভ সম্পর্ক গড়বে, একই সাথে পিয়ং-ইয়ংকে পারমানবিক সম্যার সমাধানের পথে নিয়ে যাবে.