রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন আশা করেন, যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশ লিবিয়ায় মর্মন্তুদ অভিজ্ঞতা বিবেচনা করে সিরিয়ায় আর সামরিক চিত্রনাট্য রূপায়িত করার চেষ্টা করবে না. রুশী রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন, যে বিদেশী অনুপ্রবেশের দরুন লিবিয়ায় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার পরিবর্তে, “এক শক্তির সম্পূর্ণ আধিপত্যের পরিবর্তে আর এক আরও বেশি হিংস্র শক্তি আধিপত্য কায়েম করেছে”. সিরিয়ায় আন্তর্জাতিক জনসমাজের সব উদ্যোগ দেশে আভ্যন্তরীন শান্তিপ্রতিঠার প্রতি উত্সর্গীকৃত হওয়া একান্ত জরুরী. পুতিন জোর দিয়ে বলেছেন, যে যত দ্রুত সম্ভব হিংসার পথ ত্যাগ করা দরকার, তা সেটা যে তরফ থেকেই হোক না কেন. উপসংহারে প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, যে মুখ্য হল – পূর্ণমাপের গৃহযুদ্ধ শুরু হতে না দেওয়া.