ফ্রান্স ও জার্মানীর শাসক কর্তৃপক্ষ আফগানিস্তানে সরকারী দপ্তরে কর্মরত তাদের নাগরিকদের আফগানিস্তান থেকে প্রত্যাবর্তন করার নির্দেশ দিয়েছে. এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সব অসামরিক কর্মচারীদের. কাবুলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকভবনে দুই জন মার্কিনীকে গুলি করে হত্যা করার পর নিরাপত্তার বিষয় বিবেচনা করেই এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে. এর আগে ন্যাটো ও বৃটেনের শীর্ষ নেতৃবৃন্দও তাদের সকল অসামরিক কর্মচারীদের আফগানিস্তান থেকে ডেকে পাঠিয়েছে. তালিবান গোষ্ঠীর জঙ্গীরা মার্কিনী নাগরিকদের গুলি করে হত্যা করেছে. তাদের মুখপাত্রের কথায়, এটা হলো বাগ্রাম সামরিক ঘাঁটিতে মার্কিনী সেনাদের কোরান বেইজ্জত করার প্রতিশোধ. সারা দেশজুড়ে তুমুল প্রতিবাদী আন্দোলন চলছে. আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলে কুন্দুজ প্রদেশে বিক্ষুব্ধ জনতা জাতিসংঘের মিশনভবনে হামলা করে জবরদখল করার চেষ্টা করেছিল. ভবন রক্ষীরা কোনো সতর্কীকরন ছাড়াই গুলি চালিয়েছে, ৫ জন নিহত ও প্রায় ৭০ জন আহত হয়েছে.