আফগানিস্তানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভেতরে গুলি করে মার্কিন সেনাবাহিনীর দুই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে মেরে ফেলার পর দেশটির সব মন্ত্রণালয় থেকে নিজেদের সদস্যদের সরিয়ে নিয়েছে ন্যাটো। শনিবার কাবুলে এ ঘটনা ঘটে। আফগানিস্তানে নিয়োজিত ইন্টারন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাসিসট্যান্স ফোর্সের (আইএসএএফ)কমান্ডার জন আলেন এক বিবৃতিতে এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। এ সিদ্ধান্তকে তিনি ‘নিরাপত্তার হুঁমকি’বলে উল্লেখ করেন। শনিবার পশ্চিমা গনমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়,আফগানিস্তানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণলায়ের ভেতরে গুলিতে মার্কিন সেনাবাহিনীর কর্নেল ও মেজর পদ মর্যাদার দুই কর্মকর্তা নিহত হন। উগ্রবাদী জঙ্গি সংগঠন তালেবান এ ঘটনার দ্বায়ভার স্বীকার করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা মার্কিন সেনাবাহিনীর দুই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা নিহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। ওবামা বলেন,কাবুল থেকে ন্যাটো সদস্য প্রত্যাহার করা হলেও যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানের সাথে সহযোগিতা বজায় রাখবে। এদিকে যুক্তরাজ্য কাবুলের সরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে নিজেদের পরামর্শদাতাদের সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। আফগানিস্তানে একটি মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে কোরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে পঞ্চম দিনের মতো দেশটির বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ চলছে। দেশটির  উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ বালাহারের মাজার-ই শরীফে জাতিসংঘ চত্বরে বিক্ষোভকারীরা হামলা করলে সংস্থার ৩ জন ও নেপালের গোয়েন্দা বিভাগের ৪ জন কর্মকর্তাসহ মোট ১৪ জন নিহত হয়।