পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিনা রাব্বানি খার ইসলামাবাদের সাথে “পূর্বনিশ্চিত ও স্বচ্ছ” সম্পর্ক স্থাপণের আহ্বাণ জানিয়েছেন ওয়াশিংটনের কাছে. লন্ডনে বৃটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হেগের সাথে সাক্ষাতের পর তিনি বলেছেন, যে বৃহস্পতিবার সোমালি সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সম্মেলনে তিনি মার্কিনী বিদেশসচিব হিলারি ক্লিনটনের সাথে দেখা করতে চান. ম্যাডাম খার আরও বলেছেন, যে বর্তমানে পাকিস্তানের সংসদ আমেরিকার সাথে সম্পর্কের পুণর্বতনের শর্ত বিবেচনা করে দেখছে. তার ভাষায়, দুইদেশের মধ্যে সম্পর্ক স্বচ্ছ ও দৃঢ় হওয়া উচিত এবং উভয় দেশের স্বার্থের উপযোগী হওয়া প্রয়োজন. দুইদেশের মধ্যে সম্পর্কের চূড়ান্ত অবনতি ঘটে ২০১১ সালের নভেম্বর মাসে, যখন ন্যাটোর কয়েকটি সামরিক হেলিকপ্টার পাক-আফগান সীমান্তের কাছে পাকিস্তানী সামরিক চৌকির ওপর বোমাবর্ষণ করে. সেইসময় বোমার আঘাতে পাক সেনাবাহিনীর ২৪ জন কর্মী নিহত হয়.