জাপান সরকার ২০১১ সালের ধ্বংসাত্মক ভূমিকম্প ও সুনামীর বার্ষিকী উপলক্ষে সীমিত সংখ্যায় সোনা ও রুপোর স্মৃতি-মুদ্রা প্রবর্তনের পরিকল্পনা করছে. ২০১১ সালের ১১ই মার্চ জাপানের প্রধান দ্বীপ হনস্যু-র উত্তর-পুবে ভীষণ প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘটে. জাপানের "এন.এইচ.কে" টেলি-চ্যানেল জানিয়েছে যে, সোনার মুদ্রার এক পিঠে চিত্রিত থাকবে দুর্দশাগ্রস্ত অঞ্চলের মানচিত্র এবং পায়রা; আর রুপোর মুদ্রার এক পিঠে চিত্রিত থাকবে মাছ-ধরা নৌকো এবং ধানের শিষ.সোনার ও রুপোর মুদ্রার অন্য পিঠে চিত্রিত থাকবে একাকী নারকেল গাছ, যা সময়ের সাথে সাথে বিপর্যয়ের পরে দেশের পুনর্গঠনের প্রতীক হয়ে উঠেছে. জাপানের অর্থ মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা অনুযায়ী, মুদ্রা অর্পণ করা হবে পৃথক পৃথক বিনিয়োগকারীকে, যাঁরা রাষ্ট্রীয় বন্ড দলিল কিনবে (তা বিক্রির অর্থ জমা হবে দুর্দশাগ্রস্ত অঞ্চলের পুনর্স্থাপনের তহবিলে). ১৫ই এপ্রিল যাদের বিনিয়োগের পরিমাণ হবে এক কোটি ইয়েনের (প্রায় ১ লক্ষ ২৮ হাজার ডলার) উপরে তাঁদের সোনার মুদ্রা উপহার দেওয়া হবে. রুপোর মুদ্রা উপহার দেওয়া হবে বিনিয়োগকারীদের, যাঁরা ১০ লক্ষ ইয়েনের ( প্রায় ১২.৮ হাজার ডলার) বেশি মূল্যের বন্ড কিনেছেন. তাছাড়া সরকার মুদ্রার একাংশ খোলা বাজারে বিক্রিরও পরিকল্পনা করছে.