রুশী কোম্পানী ‘রাশিয়ান রেলওয়েজ’ ইরানের বিরূদ্ধে বিধিনিষেধ জারীর কুফল ভোগ করতে শুরু করেছে. দূরদর্শন চ্যানেল ‘রাশিয়া টুডে’ কে প্রদত্ত সাক্ষাত্কারে এই মন্তব্য করেছেন কোম্পানীর সি.ই.ও. ভ্লাদিমির ইকুনিন. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে জাতিসংঘ আরোপিত নিষেধাজ্ঞা কোনো কোনো ক্ষেত্রে ইরানের সাথে অর্থনৈতিক সহযোগিতায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে না, যা একেবারেই বোধগম্য নয়. ‘রাশিয়ান রেলওয়েজ’ রেশ্ত(ইরান)- আস্তারা(আজারবাইজান)রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পে ‘আজারবাইজান রেলওয়েজ’ ও ‘ইরানিজ রেলওয়েজে’র সাথে একত্রে অংশগ্রহণ করছিল. ঐ প্রকল্প ছাড়াও ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে ইরানীপক্ষ তেহেরান-বাফক রেললাইনের বিদ্যুতিকরনের প্রকল্পে যোগ দেওয়ারও প্রস্তাব দিয়েছিল. রেল পরিবহনের ক্ষেত্রে রুশী-ইরানী সহযোগিতার ক্ষেত্র -  মুলতঃ ইরানের ভূখন্ডে তাদের আভ্যন্তরীন প্রযুক্তি উন্নয়নে সাহায্য করা এবং রেলপথে মালবাহী ট্রেনের মাধ্যমে রুশী গাড়ি, ভারী যন্ত্রপাতি, প্রযুক্তি ও মালমসলা ইরানে পাঠানো.