মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতে, টিউনিশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য ‘সিরিয়ার বন্ধুরা’ শীর্ষক আশু সাক্ষাত্কারে চীনের যোগদান সদর্থক তাত্পর্য বহন করতে পারে. মার্কিনী বিদেশদপ্তরের মুখপাত্র ভিক্টোরিয়া নিউল্যান্ড ওয়াশিংটনে এক ব্রিফিংয়ে এই কথা বলেছেন. তিনি স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন, যে টিউনিশিয়ায় উপোরক্ত সম্মেলনে সত্তরটিরও বেশি দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে. “সাক্ষাত্কারের আয়োজন করা হয়েছে, যাতে সিরিয়ার জনগনের প্রতি সংহতি প্রদর্শন করা যায় এবং সিরিয়ায় রাজনৈতিক শাসনব্যবস্থা বদলের জন্য আরব রাষ্ট্রলীগকে সমর্থন করা যায়”. নিউল্যান্ড উল্লেখ করেছেন, যে সম্মেলনের কর্মসূচী জাতিসংঘে গৃহীত সেই ঘোষণাপত্রকেই অনুসরণ করবে, রাশিয়া ও চীন যার বিরূদ্ধে ভেটো দিয়েছিল.

      “যদি চীন সম্মেলনে অংশ নিতে সম্মত হয়, তাহলে অবশ্যই সেটা হবে হিংসাত্মক কার্যকলাপ বন্ধ করার জন্য আমাদের সাথে সম্মিলিতভাবে কাজ করার সদর্থক সংকেত”. ঐ সম্মেলন ২৪শে ফেব্রুয়ারী আয়োজিত হওয়ার কথা. রাশিয়া অংশগ্রহণকারীদের তালিকা ও আলোচ্যসূচী সম্পর্কে কিছু না জানার জন্যে সম্মেলনে যোগদান থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে. চীন জানিয়েছে, যে আমন্ত্রণের প্রতিক্রিয়া কি হওয়া উচিত, তারা এখনো সেটা নিয়ে ভাবছে.