জলবায়ু পরিবর্তন ও খাদ্য নিরাপত্তা বিষয়ে একটি রাজনৈতিক সমাধানের পথ খুঁজতে   জি -২০ ভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে মেক্সিকোতে মিলিত হচ্ছেন। দুই দিনের ওই বৈঠক আজ রোববার থেকে মেক্সিকোর লস-কাবোস শহরে শুরু হয়েছে। বৈঠকের আলোচ্য বিষয় নির্ধারণ করেছে মেক্সিকো সরকার। এ বছর জি -২০ এর মূল সম্মেলনের স্বাগতিক দেশের ভূমিকা পালন করবে এ দেশটি। মেক্সিকোর রাষ্ট্রপতি ফিলিপ কালদেরোনার ভাষায়, জি-২০ এর এবারের সম্মেলনে প্রধান যে বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে তার মধ্যে গ্লোবাল ও আঞ্চলিক অর্থনীতির বৈসাদৃশ্য,বিশ্ব মূদ্রা ও অর্থ কাঠামোর পরিবর্তন ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন সাধান ইত্যাদি। রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের মুখপাত্র আলেক্সান্দার লুকাশেভিচ এই বৈঠক সম্পর্কে দেয়া মন্তব্যে বলেন,মস্কো মেক্সিকো সাক্ষাতের কর্মসূচিকে সমর্থন জানায়। জি -২০ এর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে রাশিয়ার প্রতিনিধিত্ব করছেন মেক্সিকোতে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত ভালেরি মারোজভ।

উল্লেখ্য, ১৯৯৯ সালে ২০টি দেশ নিয়ে জি -২০ সংস্থা গঠিত হয়। এর সদস্যরা হল-অস্ট্রেলিয়া, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, যুক্তরাজ্য, জার্মানী, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ইতালি, কানাডা, চীন, কোরিয়া, মেক্সিকো, রাশিয়া, সৌদি আরব, যুক্তরাষ্ট্র, তুরষ্ক, ফ্রান্স, দক্ষিণ আফ্রিকা, জাপান ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এছাড়াও জি -২০ সংস্থার সম্মেলনের স্থায়ী সদস্য হল-আইএমএফ, ইউরোপীয় সেন্ট্রাল ব্যাংক  ও বিশ্ব ব্যাংক।