গতকাল বৃহস্পতিবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আবার ইরানের বিরূদ্ধে নিষেধাজ্ঞার তালিকা সম্প্রসারন করেছে. নতুন বিধিনিষেধের শিকার হয়েছে সেদেশের গুপ্তচর ও নিরাপত্তা মন্ত্রণালয়. মার্কিনী বিদেশদপ্তরের মুখপাত্র ভিক্টোরিয়া নিউল্যান্ড বলেছেন, যে মন্ত্রণালয়ের বিরূদ্ধে বিধিনিষেধ আরোপ করার কারণ হল ইরানে মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী বিভিন্ন ঘটনায় জড়িত থাকা, আল-কায়িদা, হেসবোল্লা ও হামাস সহ সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠীগুলিকে মদত দেওয়া. পৃথক আরেকটি নির্দেশপত্রে মন্ত্রীসভার বিরূদ্ধে সিরিয়ার সরকারকে সেদেশের নাগরিকদের দমন করার কাজে সাহায্য করার অভিযোগে বাড়তি নিষেধাজ্ঞা জারী করা হয়েছে. নিউল্যান্ড বলেছেন, য়ে এইসব নিষেধাজ্ঞা ঐ মন্ত্রীসভার সাথে জড়িত অথবা তার পক্ষে কাজ করা যে কোনো ব্যক্তি, কোম্পানী বা সংস্থার বিরূদ্ধে আমেরিকাকে বিধিনিষেধ জারী করার অধিকার দেবে.

0      মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সহ একসারি পশ্চিমী দেশ সন্দেহ করছে, যে ইরান পারমানবিক অস্ত্র তৈরি করার চেষ্টা করছে. ইরান তার বিরূদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বলছে, যে তাদের পারমানবিক প্রকল্প পুরোপুরিই দেশে বিদ্যুত ঘাটতি পূরণের উদ্দেশ্যে.