বালি দ্বীপে ২০০২ সালে সন্ত্রাসবাদী হামলায় অন্যতম মুখ্য অভিযুক্ত সন্ত্রাসবাদী উমার পাটেকের বিচারের শুনানী শুরু হয়েছে. অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস এই খবর দিয়েছে. যে বিস্ফোরক পদার্থ ফাটিয়ে সেখানে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছিল, পাটেক ওরফে হিজিয়াম তা বানিয়েছিল বলে সন্দেহ করা হচ্ছে. নয় বছর ধরে আত্মগোপণ করে থাকার পরে পাটেককে গতবছরের জানুয়ারী মাসে পাকিস্তানের আব্বতাবাদ শহরে খুঁজে বের করা হয়. ঠিক ঐ জনবসতি কেন্দ্রেই ওসামা বিন-লাদেনকে খতম করা হয়েছিল. যদি ৪৫-বছর বয়সী পাটেক দোষী সাব্যস্ত হয়, তাহলে তার জন্য অপেক্ষা করে আছে গুলি করে মৃত্যুদন্ড. বালি দ্বীপে আতঙ্কবাদী হামলা করা হয়েছিল ২০০২ সালে পর্যটন এলাকায়. তখন তিনটি বোমার বিস্ফোরণে ২০২ জন নিহত ও ২০৯ জন আহত হয়. নিহতদের মধ্যে ১৬৪ জন ছিল বিদেশী নাগরিক.