মিশরে সামরিক শাসক কর্তৃপক্ষের হাজার হাজার সমর্থক সর্বোচ্চ সামরিক পরিষদের কোনো সদস্যকে রাষ্ট্রপতির পদে মনোনয়ন দেওয়ার দাবী জানাচ্ছে. আজ দেশের জাতীয় দূরদর্শন চ্যানেল এই খবর দিয়েছে. কায়রোয় সামরিক বাহিনীর সমর্থকদের জনসভা সংগঠিত হয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ভবনের কাছে শনিবারে আয়োজিত বিরোধীদের সারা দেশব্যাপী ধর্মঘটের প্রত্যুত্তরে. বিরোধীরা অবিলম্বে দেশের শাসনভার অসামরিক লোকেদের হাতে তুলে দেবার দাবী করছে. ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে হোসনি মুবারক পদত্যাগ করার পরে এই প্রথমবার হাজার হাজার মানুষ সামরিক বাহিনীর কাছে নিজস্ব প্রার্থীকে মনোনয়ন দেবার আবেদন জানিয়েছে. এবছরের গ্রীস্মকালের শুরুতে মিশরে নির্বাচন হওয়ার কথা. সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে যেমন আছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থী, তেমনই নির্দলীয়রা. স্থানীয় পর্যবেক্ষকদের মতে, দুটি রাজনৈতিক শক্তি মিশরে সে দেশের ভবিষ্যতের উপর প্রভাব ফেলতে পারে – ‘মুসলমান ভাইয়েরা’ নামক পার্টি এবং সেনাবাহিনী. কিন্তু রিয়া নোভোস্তি সংবাদসংস্থা জানাচ্ছে, যে তারা শুধুমাত্র এখনো পর্যন্ত তাদের তরফ থেকে কোনো প্রার্থীর নামই ঘোষণা করেনি, এমনকি কোন প্রার্থীকে তারা সমর্থন করবে, সেটাও জানাচ্ছে না.