সিএনএন টেলিভিশন চ্যানেলে দেখানো হয়েছে যে, ওয়াশিংটন জোর দিয়ে বলেছে যে,“মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার বিরোধী পক্ষকে কোন রকমের অস্ত্র সাহায্য করে নি, তবে এবারে সেই সম্ভাবনা যাচাই করে দেখবে”.“পেন্টাগন থেকে সিরিয়ার পরিস্থিতি দেখা হচ্ছে,তবে কোন সামরিক সাহায্য করা হয় নি”(প্রশ্ন হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কেন আগে থেকেই সাফাই গাইছে, কেউ কি প্রশ্ন করেছে এই বিষয়ে?).আমেরিকার এক উচ্চপদস্থ সামরিক কর্তা এই প্রসঙ্গে বলেছেন যে,“মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের প্রধান জেমস মেত্তিস আসন্ন সময়ে এক রিপোর্ট দেবেন,যাতে দেখান হবে যে,এই প্রসঙ্গে সামরিক বাহিনী কি হিসাব করে দেখতে পাচ্ছে,এই অঞ্চলে মার্কিন সামরিক বাহিনীর কি মজুদ রয়েছে,কি ধরনের অপারেশন তারা করতে পারে ও তার ফলে মার্কিন বাহিনীর কি ঝুঁকি থাকতে পারে”.এর আগে আমেরিকার পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ভিক্টোরিয়া ন্যুল্যান্ড ঘোষণা করেছেন যে,“মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সিরিয়ার বিরোধী পক্ষকে সহায়তা দেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে”.