ইউরো এলাকা থেকে গ্রীসকে ছাঁটাই করে দেওয়া হলে তার পরিণতি অপ্রত্যাশিত হতে পারে. জার্মানীর চ্যান্সেলর এ্যাঞ্জেলা মার্কেল এই মন্তব্য করেছেন. তার মতে, এই মুহুর্তে গ্রীসের পক্ষে প্রতিকূল পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পাওয়ার একমাত্র উপায় হচ্ছে সংস্কারসাধন. ইতিপূর্বে ইউরোপীয় সংঘের সূত্র জানিয়েছিল, যে গ্রীসের ব্যাঙ্কগুলিকে পুণরায় আমানত মজুত করার ব্যাপারে সাহায্য করার উদ্দেশ্যে নতুন প্রকল্প অনুসারে আর্থিক সাহায্যের পরিমান বাড়িয়ে ১৪৫ হাজার কোটি ইউরো পর্যন্ত করা হতে পারে. যদি গ্রীস আবার ঋণ না পায়, তাহলে তাদের বন্ডগুলোর জন্য অর্থ দিতে অসমর্থ হবে, যার সময়সীমা মার্চ মাসে. সেক্ষেত্রে দেশ সরকারীভাবে নিজেকে দেউলিয়া ঘোষণা করবে.