জাতিসংঘের সাধারন সম্পাদক বান কি মুন ঘোষণা করেছেন, যে সিরিয়ার হোমস শহরে ব্যাপক গোলাবর্ষণ, যা নাকি রাষ্ট্রীয় সেনাবাহিনী করেছে, তা শাসক কর্তৃপক্ষের আইনানুগ ক্ষমতায় থাকার যুক্তি খন্ডন করে.

     বান কি মুনের কথায়, এরকম নৃশংসতা মানবিকতার দৃষ্টিকোন থেকে মেনে নেওয়া য়ায় না. তিনি লিখেছেন – কোনো সরকার ক্ষমতায় থাকার আইনানুগতা না হারিয়ে তার আপন জনগণের বিরূদ্ধে অনুরুপ আচরন করতে পারে না. তিনি আরও লিখেছেন – নিরাপত্তা পরিষদে সিরিয়া সম্পর্কে ঘোষণাপত্রের খসড়া অনুমোদনে ব্যর্থতা সিরিয়ার শাসকদের জনগণের ওপর অত্যাচার তীব্রতর করার অধিকার দেয় না. সমস্তরকম অত্যাচার অবিলম্বে বন্ধ করা দরকার.

     মানবাধিকার রক্ষাকর্মীরা গত শনিবার জানিয়েছিল, যে রাষ্ট্রীয় সেনাবাহিনীর গোলাবর্ষণে হোমস শহরে ২১৭ জন নিহত হয়েছে. রয়টার সংবাদসংস্থা জানিয়েছে, যে গতকাল ঐ শহরে আবার গোলাবর্ষণের ফলে ৫৬ জন নিহত হয়েছে. সিরিয়ার শাসকরা এই খবর অস্বীকার করছে এবং জানিয়েছে, যে শহরের কোনো কোনো পাড়ায় জঙ্গীরা টায়ার পোড়াচ্ছে, যাতে মনে হয়, যে গোলাগুলি চলছে এবং হাতে গড়া বিস্ফোরক যন্ত্র ব্যবহার করছে.