তুরস্কের পুলিশ রবিবারে বাধ্য হয়েছিল কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়তে, যাতে সিরিয়ার বিরোধী পক্ষের লোকেরা, যারা এখানে রাজদূতাবাসে হামলা করে দখল নিতে চেয়েছিল, তারা ছত্রভঙ্গ হয়. এই খবর স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে জানানো হয়েছে. পাওয়া খবরে জানা গিয়েছে যে, ৩০০ থেকে ৪০০ সিরিয়ার লোক ও তুর্ক নাগরিক দূতাবাসের সামনে এক সমাবেশে অংশ নিয়েছিল, তারা এই বাড়ীতে সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসাদের বিরুদ্ধে স্লোগান দিয়ে বিভিন্ন জিনিস ছুঁড়ে মেরেছিল.

       যখন সমাবেশের লোকেরা এই দূতাবাসের দরজা ভেঙে ঢুকতে যায়, তখন এখানে নিরাপত্তা রক্ষায় আসা বিশাল সংখ্যক পুলিশ বাহিনী কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়ে ও লাঠি চার্জ করে জনতাকে তাড়িয়ে দেয়.

0       তুরস্কে সিরিয়ার কনস্যুল দপ্তরের উপরে হামলা একই ধরনের ঘটনা এথেন্স, বার্লিন, কায়রো, কুয়েইত, লন্ডন ও ক্যানবেরাতে হয়েছে, এই ঘটনা ঘটেছে হোমস শহরে গুলিচালনায় দুশোরও বেশী লোকের মৃত্যু হয়েছে বলে সংবাদ প্রকাশের পরে.