পাশ্চাত্য ও আরব দুনিয়ার একসারি দেশ কতৃক প্রণীত জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের ঘোষণাপত্র এই অবস্থায় রাশিয়া মেনে নিতে পারে না. ইন্টারফ্যাক্স সংবাদসংস্থাকে প্রদত্ত সাক্ষাত্কারে এই মন্তব্য করেছেন রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী গেন্নাদি গাতিলভ. তার ভাষায়, পাশ্চাত্যের নতুন ঘোষণাপত্র ২০১১ সালের অক্টোবরে রাশিয়া ও চীন যে ঘোষণাপত্রের বিরূদ্ধে ভেটো দিয়েছিল, তার থেকে তেমন কোনো ফারাক নেই. গাতিলভ বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন, যে সিরিয়ার আভ্যন্তরীন ব্যাপারে বিদেশী হস্তক্ষেপের সম্ভাবনা থেকেই যাচ্ছে.

      রাশিয়া কেবলমাত্র নিরাপত্তা পরিষদের সেই ঘোষণাপত্রই মেনে নিতে পারে, যেখানে জড়িত সবপক্ষই হিংসাত্মক কার্যকলাপ থেকে বিরত হবে, শাসক কর্তৃপক্ষ ও বিরোধীদের সংলাপ শুরু করার আহ্বাণ জানানো হবে, সিরিয়ার আভ্যন্তরীন ব্যাপারে কোনো বিদেশী হস্তক্ষেপ হবে না এবং কোনোরকম বিধিনিষেধ জারী করা অথবা তার হুমকি দেওয়া হবে না.