0এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন তুরস্কের সহকর্মী আখমেদ দাভুতোগলু কে নিয়ে বৈঠকের পরে সাংবাদিক সম্মেলনে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রী. এখানে গুরুত্বপূর্ণ হল যে, এটা সকল পক্ষের সন্তোষের কারণ যেন হয়, "তা হতে পারে কায়রো, আরব লীগের কেন্দ্রীয় দপ্তরে, তুরস্ক অথবা রাশিয়ার মাটিতে", - উল্লেখ করেছেন লাভরভ. তিনি একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক সমাজকে আহ্বান করেছেন একে অপরকে জানিয়ে কাজ করার, যাতে "সমস্ত সিরিয়ার লোককেই আলোচনার টেবিলে বসানো সম্ভব হয় ও সশস্ত্র জঙ্গীদের কাছ থেকে আলাদা হওয়া সম্ভব হয়, যারা আরব লীগের উদ্যোগ অনুযায়ী অস্ত্র সংবরণ করতে বাধ্য".