ইয়েমেনে রাষ্ট্রপতির নির্বাচন সময় মতোই হবে. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে দেশের পররাষ্ট্র বিভাগের প্রেস-সার্ভিস. প্রেস-সার্ভিসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “সরকার পরিকল্পিত সময়েই, ২১শে ফেব্রুয়ারী, রাষ্ট্রপতির নির্বাচন পরিচালনা করবে”. আগে ইয়েমেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন যে, দেশে বিশৃঙ্খলার জোয়ার আসার জন্য নির্বাচনের সময় বদলাতে পারে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের দ্বারা সমর্থিত পারস্য উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্রগুলির সহযোগিতা পরিষদের উদ্যোগের কাঠামোতে রাষ্ট্রপতি আলি আব্দাল্লা সালেহ নিজের পদ ত্যাগ করতে সম্মত হয়েছিলেন. নতুন রাষ্ট্রনেতাকে অবশ্যম্ভাবীভাবে গোটা একসারি গুরুতর সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে. তার মধ্যে অন্যতম হল দেশের দক্ষিণাঞ্চলে বিচ্ছিন্নতাবাদী প্রবণতার বৃদ্ধি, যেখানে ইস্লামপন্থী জঙ্গীরা ইতিমধ্যে আবায়ান প্রদেশের বেশির ভাগ অংশ নিয়ন্ত্রণ করছে.