0মিশরের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হোসনি মুবারকের ও তাঁর ছেলে আলিয়া ও গামালের উকিল ফরিদ আদ-দিব ২০১১ সালের জানুয়ারী মাসে কায়রো শহরে শান্তিপ্রিয় বিক্ষোভ মিছিলের লোকেদের হত্যার ভার দেশের সেনা বাহিনীর কাঁধে চাপিয়ে দিয়েছেন. মুবারক পরিবারের উকিলের কথামতো, হত্যা ও গণ হারে আহত হওয়ার ঘটনা লক্ষ্য করা গিয়েছে শহর গুলির রাস্তায় সামরিক বাহিনীর লোকেরা বের হওয়ার পর থেকেই. আদ- দিব উল্লেখ করেছেন যে, ১৯৫২ সালে গৃহীত মিশরের আইন অনুযায়ী যদি সামরিক বাহিনী দেশে নিরাপত্তার দায়িত্ব নেয় তবে নিয়ম শৃঙ্খলা রক্ষার ভারও তাদের হয়. বুধবারে কায়রো শহরে পুলিশ একাডেমীতে শান্তিপ্রিয় বিক্ষোভ মিছিলের উপরে ২০১১ সালের গণ অভ্যুত্থানের দিন গুলিতে গুলি চালনা নিয়ে উচ্চ পদস্থ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগের শুনানী আবার হয়েছে. স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে জানানো হয়েছে যে, শেষ অধিবেশন গুলি অভিযুক্তদের স্বপক্ষ সমর্থনের জন্য দেওয়া হয়েছে.