রাশিয়া ব্রিক্স গ্রুপে এবং এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থায় সক্রিয় কাজের কাঠামোতে এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নিজের স্থিতি সুদৃঢ় করে যেতে চায়. এ সম্বন্ধে বুধবার মস্কোয় সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ. ব্রিক্স গ্রুপে কাজের কথায় এসে লাভরোভ বলেন যে, বিগত ২০১১ সালে এ সংস্থার নেতৃবৃন্দের সাক্ষাতে প্রমাণিত হয়েছে যে, এটি “মর্যাদাসম্পন্ন সংগঠন, আর্থিক-অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে যার প্রভাব আছে”. একই সঙ্গে ব্রিক্স আন্তর্জাতিক ব্যাপারে নির্দিষ্ট দৃষ্টিভঙ্গী প্রকাশ করছে এবং ক্রমশ বেশি সংখ্যক দেশের সমর্থন পাচ্ছে. মস্কো আশা করে যে, দিল্লিতে ব্রিক্সের পরবর্তী শীর্ষ সাক্ষাতে এ সংস্থার অংশগ্রহণকারীদের সহযোগিতা সুদৃঢ় হবে এবং বিশ্ব অর্থনীতিতে, বিশ্ব আর্থিক ব্যবস্থায় এবং আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে তাদের স্থিতি মজবুত করতে তা সাহায্য করবে, বলেন লাভরোভ. তিনি তাছাড়া উল্লেখ করেন যে, মস্কো বিশেষ মনোযোগ দিচ্ছে চীন ও ভারতের সাথে স্ট্র্যাটেজিক শরিকানার সম্পর্ক বিকাশের প্রতি, জাপান, কোরিয়া প্রজাতন্ত্র, “আসিয়ান” এবং এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অন্যান্য দেশের সাথে বহুমুখী সহযোগিতা গভীর করার প্রতি. লাভরোভ উল্লেখ করেন যে, রাশিয়া তাদের সাথে প্রাকৌশলিক এবং বিনিয়োগী জোট গঠনে আগ্রহী. ২০১১ সাল থেকে রাশিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পূর্ব-এশীয় শীর্ষ সাক্ষাতে অংশগ্রহণ করছে. রাশিয়ার মন্ত্রী আরও উল্লেখ করেন যে, রাশিয়া এবং এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে তার শরিকদের পারস্পরিক লাভজনক সম্পর্কের সুদৃঢ়করণ ও প্রসার ২০১২ সালের সেপ্টেম্বরে ভ্লাদিভস্তোকে এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংস্থার পরবর্তী শীর্ষ সাক্ষাত্ পরিচালনায় সাহায্য করবে.