বাশার আসাদের অনুগামী ও বিরোধীপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে গত একদিনে ১২ জন নিহত হয়েছে. ইন্টারফ্যাক্স সংবাদসংস্থা জানাচ্ছে, যে আরব রাষ্ট্রলীগের পর্যবেক্ষকেরা সিরিয়ায় থাকাকালীন শয়ে শয়ে মানুষ নিহত হয়েছে. গত রবিবার লীগের সদস্য দেশগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা মিলিত হয়েছিলেন, পর্যবেক্ষকদের আর সিরিয়ায় রাখার কোনো অর্থ আছে কিনা, সেই ব্যাপারে আলোচনা করতে. আরব রাষ্ট্রলীগের প্রধান নাবিল আল-আরাবি ঘোষণা করেছেন, যে সিরিয়ায় সামরিক বাহিনী পাঠানোর ব্যাপারে তার সংস্থা ২১শে জানুয়ারি আলোচনা করবে. আজ জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ সিরিয়ার ব্যাপারে রুশী প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে. পাশ্চাত্য মনে করে, যে রুশী প্রস্তাব স্পষ্ট নয়, কারণ সেখানে পরিষ্কার করে বলা হয়নি, যে রাশিয়া বাশার আসাদের বিরূদ্ধে কড়া নীতি গ্রহণ করবে কিনা. পশ্চিমী কূটনীতিবিদেরা বলছেন, যে তারা রাশিয়া কতৃক প্রস্তাবিত সংঘর্ষরত উভয়পক্ষকে সমানভাবে দায়ী করাকে মেনে নিতে পারেন না. তাদের মতে, এইভাবে মস্কো দামাস্কাসকে বাড়তি সময় সময় দেওয়ার চেষ্টা করছে. ২০১১ সালের অক্টোবর মাসে রাশিয়া ও চীন নিরাপত্তা পরিষদে পাশ্চাত্যের প্রস্তাবিত সিরিয়ার বিরূদ্ধে বাধানিষেধ জারী করার বিপক্ষে ভেটো দেয়.