তেহেরান ওপেকের সদস্য দেশগুলিকে এই বলে সতর্ক করে দিয়েছে, যে ইরানের খনিজতেল রপ্তানীর উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করা হলে, যদি ওপেক তার তেল নিস্কাষণের পরিমান বাড়াতে থাকে, তাহলে তাদের তার পরিণতির জন্য উত্তর দিতে হবে. ওপেকে ইরানের প্রতিনিধি মহম্মদ আলি হাতিবি এই কথা ঘোষণা করেছেন. তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, যে যদি ইরানের খনিজতেলের বিকল্পস্বরূপ ঐ দেশগুলি সবুজসংকেত দেয়, তাহলে তারাই হবে মুখ্য দোষী, এবং এর ফলশ্রুতিতে হরমুজ প্রণালী সহ গোটা এলাকার পরিবর্তিত পরিস্থিতির জন্য তারাই দায়ী হবে.