ইরানের কর্তৃপক্ষ এ অভিযোগ নিয়ে আলোচনা করতে সম্মত হয়েছে যে, ইস্লামিক প্রজাতন্ত্র নাকি পারমাণবিক অস্ত্র তৈরী নিয়ে গোপনে কাজ চালিয়েছে. আশা করা হচ্ছে যে, তা ঘটবে ২৮শে জানুয়ারীর জন্য পরিকল্পিত আলাপ-আলোচনায়, কূটনৈতিক মহলের উত্সকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে “অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস” সংবাদ এজেন্সি. এজেন্সি জানিয়েছে যে, ২৮শে জানুয়ারী আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সির পরিচালকমন্ডলীর প্রতিনিধিদের তেহেরান সফর পরিকল্পিত. আসন্ন আলাপ-আলোচনার খুঁটিনটি জানানো হয় নি. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং পাশ্চাত্যের অন্য একসারি দেশ ইরানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে শান্তিপূর্ণ পারমাণবিক কর্মসূচির আড়ালে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরী করার. তেহেরান সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে এ কথা ঘোষণা করে যে, তার পারমাণবিক কর্মসূচি নির্দেশিত শুধু দেশের বিদ্যুত্শক্তির চাহিদা মেটানোর জন্য. নভেম্বরের শেষে আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সি ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি সম্পর্কে রিপোর্ট পেশ করে এবং ঘোষণা করে যে, তেহেরান ২০০৩ সাল পর্যন্ত পারমাণবিক অস্ত্র সৃষ্টি নিয়ে কাজ চালিয়েছিল, এবং এ ধরণের কাজ হয়ত এখনও চালিয়ে যাচ্ছে.