রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের ইরানে “ফোর্দু” কারখানায় ইউরেনিয়াম পরিশোধন নিয়ে কাজ শুরুর বিষয়টি আলোচনার পরিকল্পনা নেই. এ সম্বন্ধে শুক্রবার “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী গেন্নাদি গাতিলোভ. তিনি ব্যাখ্যা করে বলেন যে, তেহেরান কাজ শুরু করার কথা সময় মতো আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সিকে জানিয়েছে এবং সেখানে অবস্থিত সমস্ত পারমাণবিক বস্তু এজেন্সির নিয়ন্ত্রণাধীনে রয়েছে. তিনি উল্লেখ করেন, “এটা বিবেচনায় না রেখে পারা যায় না. এ কথা আমরা বিবেচনায় রেখে আমরা কাজ করে যাবো, সেই সঙ্গে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদেও”. একই সঙ্গে গাতিলোভ বলেছেন যে, কুম শহরের কাছে “ফোর্দু” কারখানায় ইউরেনিয়াম পরিশোধন নিয়ে ইরানের সম্প্রতি কাজ শুরু আমাদের আক্ষেপ জাগায়. মস্কো স্বীকার করতে বাধ্য যে, ইরান “তার পারমাণবিক কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে উদ্বেগ দূর করার জন্য আন্তর্জাতিক জনসমাজের দাবি উপেক্ষা করে চলেছে”. এ কথা কুম শহরের কাছে নির্মিত পরিশোধন কারখানার কাজ স্থগিত রাখা সম্পর্কেও প্রযোজ্য, যা ব্যাখ্যা করা হয়েছে আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সি এবং রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের তত্সংক্রান্ত সিদ্ধান্তে.