সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রক আমেরিকাকে আরব রাষ্ট্রলীগের কাজে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগে দোষারোপ করছে. আরব রাষ্ট্রলীগের পর্যবেক্ষকেরা বর্তমানে সিরিয়ায় আছে. সিরিয়ার বিদেশমন্ত্রকের প্রতিনিধি জিহাদ মাকডিসি দেশে হিংসাত্মক কার্যকলাপ বন্ধ হচ্ছে না এবং সিরিয়া তার দেওয়া প্রতিশ্রুতি পালন করছে না বলে মার্কিনী অভিযোগকে আরব রাষ্ট্রলীগের কর্মকান্ডে অন্যায় হস্তক্ষেপ বলে মন্তব্য করেছেন. ইতিপূর্বে আমেরিকার বিদেশদপ্তরের প্রতিনিধি ভিক্টোরিয়া নিউল্যান্ড জানিয়েছিলেন, যে মার্কিনী বিদেশসচিবের সহকারী জেফ্রি ফেল্টম্যান সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে আরব রাষ্ট্রলীগের প্রতিনিধিদের সাথে আলোচনা করার উদ্দেশ্যে খুব শীঘ্রই কায়রো যাবেন. আগামী শনিবারে নির্দ্ধারিত আরব রাষ্ট্রলীগের সদস্য দেশগুলির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকের আগেই, যেখানে সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে প্রথম রিপোর্ট পেশ করার কথা, তিনি কায়রোয় সফর করতে চান.

   গত ডিসেম্বর মাসে দামাস্কাস প্রশাসনের দেওয়া প্রতিশ্রুতি, যে তারা প্রতিবাদী আন্দোলন অস্ত্রের জোরে দমন করবে না, তার সাক্ষ্য পাওয়ার জন্যে আরব রাষ্ট্রলীগের পর্যবেক্ষকেরা সিরিয়ায় যায়. পর্যবেক্ষকদের কার্যকলাপ পাশ্চাত্য দুনিয়ায় ও সিরিয়ার বিরোধীপক্ষের প্রবল ক্রোধ সৃস্টি করেছে. কারণ, হোমস শহর পরিদর্শন করার পরে তারা সিরিয়ার শাসক কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে কোনোরকম আইনলঙ্ঘন আবিস্কার করেনি, বরং শহরে একাধিক সশস্ত্র বিরোধী গুন্ডাদলের সন্ধান পেয়েছে.