প্যালেস্টিনীয় গোষ্ঠী ‘হামাস’ অন্য গোষ্ঠী ‘ফাথ’কে ইস্রায়েলের সাথে সমস্তরকম আলাপ-আলোচনা থেকে বিরত হওয়ার আহ্বাণ জানিয়েছে. গত মঙ্গলবার জর্ডনের রাজধানী আম্মানে ইস্রায়েল ও প্যালেস্টিনীয় জাতীয় পরিষদের আলাপ-আলোচনার পরেই এই আহ্বাণ জানানো হয়েছে. ‘হামাসে’র নেতৃবৃন্দ বিস্মিত হয়েছে, যে তাদের সাথে শলা-পরামর্শ না করেই ‘ফাথ’ ইস্রায়েলের হাতে একাধিক তথ্য অর্পণ করেছে. ‘ফাথ’ যেহেতু ‘হামাসে’র সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক স্থাপণ করতে চায়, সুতরাং ভাবী প্যালেস্টাইন সম্পর্কিত যে কোনো প্রশ্ন নিয়ে শলা-পরামর্শ করা উচিত বলে ‘হামাস’ ঘোষণা করেছে. অন্যদিকে জর্ডনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাসের জাউদা আম্মানে বৈঠক শেষ হওয়ার পরে বলেছেন, যে বৈঠক ও তার পরিবেশ সুফল দিয়েছে. প্যালেস্টিনীয়রা সীমান্তরেখা ও নিরাপত্তার বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে. ইস্রায়েলীপক্ষ ঐ চুক্তি গ্রহণ করেছে এবং বিচার বিবেচনা করে উত্তর দেবার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে. জর্ডন নদীর পশ্চিম উপকূলে শাসনরত ‘ফাথ’ গোষ্ঠীকে ইস্রায়েল সহ পৃথিবীর অধিকাংশ দেশই প্যালেস্টাইনের জনগণের একমাত্র আইনানুগ প্রতিনিধি হিসাবে গণ্য করে. ‘হামাস’ গোষ্ঠীকে পাশ্চাত্যের বহু দেশ উগ্রপন্থী বলে মনে করে. ‘হামাস’ গাজা সেক্টরে শাসনক্ষমতায় আছে.