জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি এবং জাতিসংঘে দক্ষিণ আফ্রিকার স্থায়ী প্রতিনিধি বাসো সাংকু গতসন্ধ্যায় বলেছেন, যে লিবিয়ায় যুদ্ধ চলাকালে মানবাধিকার লঙ্ঘনের সমস্ত ঘটনার সরেজমিনে তদন্ত হওয়া অপরিহার্য এবং সংঘাতেলিপ্ত সকলেরই বিচার হওয়া দরকার. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে তদন্ত থেকে কারও ছাড়া পাওয়া উচিত নয়. নিরাপত্তা পরিষদ গত ১৭ই মার্চ নিরীহ মানুষের মৃত্যু রোধ করার অজুহাতে সশস্ত্র বিরোধীদের সমর্থনে বাইরে থেকে সামরিক শক্তি প্রয়োগ করার অনুমতি দেয়. ফলশ্রুতিতে মুয়াম্মার গদ্দাফির নেতৃত্বাধীন শাসনব্যবস্থার পতন হয়, গদ্দাফিকে হত্যা করা হয়, আর লিবিয়ার শাসনক্ষমতায় আসীন হয় অন্তর্বর্তীকালীন জাতীয় পরিষদ. গৃহযুদ্ধ চলাকালে লিবিয়ায় হাজার হাজার মানুষ সংঘর্ষে নিহত হয়েছে.