ইউরোপীয় আর্থিক পরিষদের প্রধান ও লুক্সেমবার্গের প্রধানমন্ত্রী জাঁ ক্লদ ইউনকার বলেছেন, যে ইউরোপীয় সংঘ আর্থিক পতনের চরম সীমায় পৌঁছাতে পারে, যার পরিমাপ করা এখনো সম্ভব নয়. ব্লুমবার্গ সংবাদসংস্থা জানাচ্ছে, যে ইউনকার আরও বলেছেন, যে গ্রীস আর্থিক সংকট থেকে মুক্তি পেতে তার পুরনো মুদ্রা দ্রাহমায় ফিরে যেতে রাজি নয়. তিনি উল্লেখ করেছেন, যে গ্রীসের রাষ্ট্রীয় বন্ডগুলির অধিকারীদের সাথে মতবিনিময় করে খুব শীঘ্রই গ্রীসকে দ্বিতীয় দফায় ঋণ দেওয়া হবে. অন্যদিকে গ্রীসের প্রধানমন্ত্রী লুকাস পাপাদেমোস ঘোষণা করেছেন, যে সামনের মার্চ মাসে গ্রীস ঋণ শোধ না করতে পারার ব্যাপক সংকটের মুখে পড়বে. তিনি আরও বলেছেন, যে ট্রেড-ইউনিয়ন যদি ব্যাপকহারে বেতনহ্রাসে সম্মত না হয়, তাহলে বিদেশী বিনিয়োগকারীরা ভবিষ্যতে গ্রীসে আর অর্থ বিনিয়োগ করবে না. পাপাদেমোস বলেছেন, যে তার ফলে গ্রীসের অর্থনীতি বাঁচানোর প্রকল্প অচল হয়ে যাবে, এবং দেশ ঋণ শোধ করতে সমর্থ হবে না.