মিশরের জাতীয় নির্বাচনী কমিটির সভাপতি আব্দেল মোইজ ইব্রাহিম বলেছেন, যে দেশে তৃতীয় দফার ভোটদান কোনো আইনলঙ্ঘন ছাড়াই সমাপিত হচ্ছে. তার ভাষ্য অনুযায়ী কয়েকটি ভোটদান কেন্দ্র সময়মতো খোলেনি – বিচারকদের জন্যে, যাদের ভোটদানপর্বের উপর পর্যবেক্ষণ করার দায়িত্ব. বিপ্লবের পরে মিশরের ৯টি প্রদেশে মঙ্গল ও বুধবারে ভোটদান চলছে. ১৫০টি পদের জন্য প্রায় ২৭০০ প্রার্থী. প্রথম দুদফার ভোটের পরে ঐস্লামিক পার্টি ‘স্বাধীনতা ও ন্যায়’ অন্যদের থেকে অনেক এগিয়ে আছে. উদারপন্থী পার্টি তৃতীয় স্থানে আছে.