পিয়ং ইয়ং জাপানের সাথে সম্পর্কের উন্নতির পরিপ্রেক্ষিত দেখতে পাচ্ছে না. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার জানিয়েছে “উত্তর কোরিয়ার কেন্দ্রীয় টেলিগ্রাফ এজেন্সি”. গত বছরের ১৭ই ডিসেম্বর হৃদরোগে মারা যাওয়া উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম চেন ইর-এর মৃত্যু উপলক্ষে পিয়ং ইয়ংয়ে সরকারী সমবেদনা না পাঠানোর ব্যাপারে জাপানের সিদ্ধান্তের নিন্দে করেছে এজেন্সি. টোকিও শুধু মৌখিক সমবেদনা জ্ঞাপন করেছে, যা পড়েছেন জাপানের মন্ত্রীপরিষদের প্রধান সচিব ওসামু ফুজিমুরা. এজেন্সির খবরে জোর দিয়ে বলা হয়েছে, “জাপান সরকারের এ সিদ্ধান্ত উত্তর কোরিয়া ও জাপানের মাঝে সম্পর্কের উন্নতির পরিপ্রেক্ষিতকে আরও বেশি কুয়াশাচ্ছন্ন করে ফেলেছে”.