চলতি বছরের ১১ই সেপ্টেম্বর নাসা যে দুটি প্রোব পাঠিয়েছিল, সে দুটি নববর্ষ নাগাদ চাঁদের কক্ষপথে থিতু হবে. নাসার গবেষনাগারের প্রতিনিধি ডেভিড লেম্যান জানিয়েছেন, যে ঐ প্রোব দুটি কয়েকমাস ধরে চাঁদের চতুর্দিকে ঘুরবে এবং তার মাধ্যাকর্ষনের মানচিত্র আঁকবে. বিজ্ঞানীরা আশা করছেন, যে ঐ প্রোবদুটির সাহায্যে চাঁদের মাধ্যাকর্ষনের মানচিত্র ১ হাজার গুন নিখুঁত হবে, যা ভবিষ্যতে চালকসম্পন্ন মহাকাশযানের অবতরনে সহায়তা করতে পারবে. আরও একটা লক্ষ্য হল – চাঁদে খনিজ পদার্থের সম্ভাব্য পরিমান অনুধাবন করা.