আমেরিকার শাসক কর্তৃপক্ষ এখনো ঠিক করেনি, যে চিকিত্সার জন্য ইয়েমেনের রাষ্ট্রপতি আলি আবদাল্লা সালেহকে সেদেশে ঢোকার অনুমতি দেওয়া উচিত কিনা. আজ হোয়াইট হাউসের প্রতিনিধি জোশ এর্নেস্ট এই কথা জানিয়েছেন. তিনি বলেন, যে আমেরিকার কর্তৃপক্ষ ভিসার জন্য সালেহর আবেদনপত্র বিবেচনা করে দেখছে, এ ব্যাপারে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়নি. ইতিপূর্বে একসারি মার্কিনী সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল, যে সালেহকে ইতিমধ্যেই চিকিত্সার জন্য আমেরিকায় যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে. এর আগে সালেহ পারস্য উপসাগরীয় এলাকার আরব রাষ্ট্র পরিষদের উদ্যোগক্রমে এক সম্মতিপত্র স্বাক্ষর করেন. ঐ দলিল অনুযায়ী তিনি আগামী বছরের সূচনায় উপ-রাষ্ট্রপতি আব্দু রাবু মনসুরের হাতে দেশের শাসনক্ষমতা হস্তান্তর করে পদত্যাগ করবেন. বিরোধীদের চাপে ইয়েমেনে ২০১২ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের দিন ধার্য করা হয়েছে.