ইরাকের শাসন কর্তৃপজ্ঞ ও জাতিসংঘ ৩ হাজারেরও বেশি ইরানি শরণার্থী, যারা ১৯৮০ সাল থেকে আশ্রাফ শিবিরে আশ্রয় পেয়েছে, তাদের পুণর্বাসন দেবার চুক্তি স্বাক্ষর করেছে. বি.বি.সি. এই সংবাদ দিয়েছে. ঐ চুক্তির শর্ত অনুযায়ী, শিবিরের বাসিন্দাদের সাময়িক আশ্রয়স্থলে পুণর্বাসন দেওয়া হবে. পরবর্তী পর্যায়ে জাতিসংঘ তাদের উদ্বাস্তুর মর্যাদা দেবে. চুক্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে, যে জাতিসংঘের শরণার্থী সংক্রান্ত সর্ব্বোচ্চ পরিচালন কমিটি অবিলম্বে অকুতোস্থলে বিশেষজ্ঞদের পাঠাবে, যারা উদ্বাস্তুর মর্যাদা পাওয়ার জন্য আবেদনপত্রগুলি বিচার বিবেচনা করে দেখবে. আশরাফ শিবিরে আশ্রয়প্রাপ্ত শরণার্থীরা ছিল ইরানে জাতীয় মোজাহেদ সংস্থার সদস্য এবং ১৯৮০ থেকে ১৯৮৮ সাল পর্যন্ত চলা ইরান-ইরাক যুদ্ধের সময় তারা ইরাকের হয়ে যুদ্ধ করেছিল. এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি, যে কবে পুণর্বাসন দেওয়া শুরু হবে. তাছাড়া, এখনো ঠিক বোঝা যাচ্ছে না, যে শিবিরের বাসিন্দারা এই পদক্ষেপ মেনে নেবে কিনা.