সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমে ইদলিব প্রদেশে সিরিয়ার সশস্ত্র বাহিনী ছেড়ে সরকারবিরোধী আন্দোলনে যোগ দেওয়ার চেষ্টা করা ৭০ জনেরও বেশি সৈনিককে গুলি করে মারা হয়েছে. এ সম্বন্ধে জানিয়েছে বৃটিশ টেলি-রেডিও কর্পোরেশন “বি.বি.সি”, লন্ডনে অবস্থিত “সিরিয়ায় মানব অধিকার পালন মনিটরিংয়ের কেন্দ্রকে” উদ্ধৃত করে. স্বাধীন কোনো উত্স থেকে এ খবরের সমর্থন পাওয়া যায় নি, কারণ বিদেশী সাংবাদিকরা সিরিয়ায় স্বচ্ছন্দে ঘুরে বেড়াতে পারে না. তাছাড়া, এ কেন্দ্রের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার সারা দেশে প্রতিবাদে অংশগ্রহণকারী অন্ততপক্ষে ১৩ জন মারা গেছে. অথচ প্রতিবাদ আয়োজন করা এবং তার গতির প্রতি লক্ষ্য রাখা স্থানীয় সঙ্গতি সাধন কমিটি জানিয়েছে যে, শুধু সোমবারেই সিরিয়ায় প্রতিবাদে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ৩১ জন মারা গেছে. এদিকে সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের সরকার নিশ্চয়োক্তি করছে যে, তারা লড়াই করছে সশস্ত্র গুন্ডাদের বিরুদ্ধে, যারা দেশে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে. সিরিয়ার কর্তৃপক্ষের দ্বারা দেশে আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের পর্যবেক্ষক মিশনকে আসতে দেওয়ায় সম্মতি দানের কয়েক ঘন্টা পরেই এই সৈন্যবাহিনী ছেড়ে যাওয়া সৈনিকদের গুলি করে মারা হয়েছে. এর আগে লীগ কয়েকটি শর্তে সম্মত হয়েছিল, যার দাবি করছিল দামাস্কাস. আশা করা হচ্ছে যে, পর্যবেক্ষকদের প্রথম দল এ সপ্তাহেই সিরিয়ায় আসবে.