ভারতের কোলকাতা মহানগরীর ঢাকুরিয়ায় একটি হাসপাতালে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ইতিমধ্যেই ৬১ জন নিহত হয়েছে. ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলিকে এই খবর দিয়েছেন পশ্চিম বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি. ভারতীয় দূরদর্শন চ্যানেলগুলিকে তিনি জানিয়েছেন, যে এখনো প্রায় ২০টি দেহ আগুনের তলায় চাপা পড়ে আছে. মমতা বলেছেন, যে অধিকাংশ মানুষ মারা গেছে ধোঁয়ায় দম আটকে – তাদের বাইরে বের করে আনার সময় পাওয়া যায়নি. মৃতদেহ সনাক্তকরনের কাজ শুরু হয়েছে. শাসক কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করেছে, যে তারা হাসপাতালের শীর্ষ কর্তৃপক্ষের বিরূদ্ধে মামলা দায়ের করবে, কারন তারা যথাযথ অগ্নি প্রতিরোধক ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি. রাজ্য সরকার নিহতদের পরিবারবর্গকে আর্থিক সাহায্য দেবে. কত লোক এখনো অগ্নিদগ্ধ এলাকায় ধোঁয়ার কুন্ডলীর নীচে চাপা পড়ে থাকতে পারে, সেটা এখনো সঠিক বোঝা যাচ্ছে না. স্থানীয় সময় রাত দুটো নাগাদ ঢাকুরিয়ার দক্ষিণ দিকে এ.এম.আর.আই. হাসপাতালের ভূগর্ভ তলায় আগুন লাগে. নিমেষের মধ্যে ঐ আগুন বহুতল ভবনে ছড়িয়ে পড়ে. ২৫টি দমকল ব্রিগেড আগুন নেভানো ও উদ্ধারকার্যে অংশ নিযেছে.