আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের প্রধান সচিব নাবিল আল-আরাবি পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের পর্যায়ে এই আঞ্চলিক সংস্থার জরুরী বৈঠক আহ্বান করছেন কায়রো-তে. এ সাক্ষাতের অংশগ্রহণকারীরা দামাস্কাসের দ্বারা স্বাধীন পর্যবেক্ষকদের গ্রহণে সম্মত হওয়ার পরে সিরিয়ায় সঙ্ঘর্ষমূলক পরিস্থিতি মীমাংসার পরিপ্রেক্ষিত আলোচনা করবেন. এর প্রাক্কালে নাবিল আল-আরাবি বলেন যে, আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের সঙ্কট মীমাংসার পরিকল্পনা নির্দিষ্ট শর্তে গ্রহণে সিরিয়ার প্রস্তুতি দামাস্কাসের বিরুদ্ধে প্রবর্তিত বাধানিষেধ আপনা-আপনিভাবে থামাবে না. তাঁর কথায়, সিরিয়ার বিরুদ্ধে বাণিজ্যিক-অর্থনৈতিক সীমিতকরণ ইতিমধ্যে বলবত্ হয়েছে. তা বাতিল করতে পারে শুধু আরব লীগের পরিষদের তত্সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত. গত সোমবার সিরিয়া ৫০০ জন আরব পর্যবেক্ষককে গ্রহণের সম্মতি দিয়েছিল, যারা এ দেশের ঘটনাবলির স্বাধীন মনিটরিং করবে এবং আরব লীগের সঙ্কট অতিক্রমের “পথ-মানচিত্র” পালনের প্রতি নজর রাখবে, যা একমাস আগে দোহা বৈঠকে সর্বসম্মত করা হয়েছিল. এদিকে, মার্কিনী পররাষ্ট্র সচিব হিলারী ক্লিন্টন জেনেভায় সিরিয়ার বিরোধী পক্ষগুলির প্রতিনিধিদের সাথে সাক্ষাত্ করেছেন. তিনি তাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার এবং শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক রূপান্তর সাধনের আহ্বান জানিয়েছেন. তাঁর কথায়, গণতন্ত্রে উত্তরণ দেশে আইনের প্রধান্য সুনিশ্চিত করবে এবং মৌলিক মানবাধিকার গ্যারান্টিকৃত করবে. সিরিয়ার প্রচার মাধ্যম সেই সব সামরিক অভিযানের খবর দিচ্ছে, যা সেনাবাহিনীর বিশেষ দল প্রতিবেশী দেশগুলি থেকে অনুপ্রবেশ করা জঙ্গীদের বিরুদ্ধে চালাচ্ছে. উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি বজায় রয়েছে উত্তরে তুরস্কের সাথে সীমানায় ইডলিব প্রদেশে, এবং সিরিয়ার কেন্দ্রাঞ্চলে – হোমস ও হামায়.