রাশিয়ায় ক্ষমতাসীন পার্টি “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” পার্লামেন্টে সংখ্যাধিক্য আসন অধিকার করবে, এ সত্ত্বেও যে, প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, ৫০ শতাংশের কম ভোট পেয়েছে. এর প্রমাণ দিচ্ছে কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিশনের তথ্য, যা কমিশনের প্রধান ভ্লাদিমির চুরোভ সোমবার ঘোষণা করেছেন. প্রায় ৯৬ শতাংশ ভোট গণনার পরে দেখা গেছে যে, “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” পেয়েছে ৪৯,৫৪ শতাংশ ভোট. তবুও, এ পার্টি পার্লামেন্টের ৪৫০টি আসনের মধ্যে ২৩৮টি আসনের দাবি করতে পারে. “রাশিয়ার কমিউনিস্ট পার্টি” পেতে পারে ৯২টি আসন, বাম-মধ্যপন্থী “ন্যায়পূর্ণ রাশিয়া” -৬৪টি আসন, “রাশিয়ার লিবেরাল ডেমোক্রেটিক পার্টি” -৫৬টি. চুরোভের কথায়, রাশিয়ার পার্লামেন্টারী নির্বাচনে নির্বাচকদের উপস্থিতি ছিল ৬০.২ শতাংশ. ২০০৭ সালে আগের নির্বাচনে নির্বাচক এসেছিল ৬৩.৮ শতাংশ. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ, যিনি “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” পার্টির প্রাকনির্বাচনী তালিকায় প্রথম স্থানে ছিলেন, মনে করেন যে, পার্টি মর্যাদার সাথে নির্বাচনে যোগ্য স্থান অধিকার করেছে. তাঁর কথায়, নতুন দুমার বিন্যাস দেশে রাজনৈতিক শক্তিগুলির বাস্তব অবস্থা প্রতিফলিত করে. মেদভেদেভ এ সম্ভাবনা বাদ দেন নি যে, রাষ্ট্রীয় দুমার নতুন বিন্যাসে “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” কিছু কিছু প্রশ্নে অন্যান্য পার্টির সাথে কোয়ালিশনের চুক্তিতে আবদ্ধ হবে.