জার্মানির বন শহরে সোমবার শুরু হচ্ছে আফগানিস্তান সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সম্মেলন, য়েখানে প্রধান আলোচ্য বিষয় – ২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক বাহিনীর অপসারণের পরে এ দেশের ভবিষ্যত্. সম্মেলনের অংশগ্রহণ কারীদের আলোচনা করতে হবে ইস্লামিক “তালিবান” আন্দোলনের প্রতিনিধিদের সাথে সংলাপের সম্ভাবনা, অঞ্চলে পরিস্থিতি স্থিতিশীল করায় প্রতিবেশী দেশগুলির ভূমিকা, আফগানিস্তানের অর্থনৈতিক বিকাশের সমস্যা, দেশের নিরাপত্তার দায়িত্ব আফগান সেনাবাহিনী ও পুলিশের হাতে সমর্পনের ব্যবস্থা, নার্কোটিকের উত্পাদন ও চোরাচালানের বিরুদ্ধে সংগ্রামের ব্যবস্থা. বর্তমান সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে আফগানিস্তানে তালিবদের শাসন উত্খাত করার ১০ বছর পরে. এ সম্মেলনে এসেছেন ৮৫টি দেশের এক হাজারেরও বেশি উচ্চপদস্থ প্রতিনিধি. রাশিয়ার প্রতিনিধিত্ব করছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ.  শেষ মুহূর্তে ইস্লামাবাদ এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করতে অস্বীকার করেছে ন্যাটো জোটের বিমানবাহিনীর ভুল করে আক্রমণ করার ফলে ২৪ জন পাকিস্তানী সীমান্ত সৈনিকের মৃত্যুর জন্য.