বিগত দশ বছর ধরে রাশিয়ায় ক্ষমতাসীন “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” পার্টি রবিবারের পার্লামেন্টারী নির্বাচনে ৪৯.৪৭ শতাংশ ভোট পেয়েছে. নির্বাচনের ফলাফল দেখিয়েছে যে, নির্বাচকরা রাজনৈতিক বর্ণচ্ছটায় বামের দিকে বেশি ঝুঁকছেন. কমিউনিস্টরা (“রাশিয়ার কমিউনিস্ট পার্টি”) পেয়েছে ১৯.১৫ শতাংশ ভোট, যা রাষ্ট্রীয় দুমার (রাশিয়ার পার্লামেন্টের নিম্ন কক্ষ) গত বারের নির্বাচনের ভোটের তুলনায় দুগুণ বেশি. বাম-মধ্যপন্থী “ন্যায়পূর্ণ রাশিয়া” পার্টি অপ্রত্যাশিতভাবে ১৩.১৬ শতাংশ ভোট পেয়ে তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে. কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, ভ্লাদিমির ঝিরিনোভস্কির নেতৃত্বে “রাশিয়ার লিবেরাল ডেমোক্রেটিক পার্টি” ১১.৬৭ শতাংশ ভোট পেয়ে চতুর্থ স্থান অধিকার করেছে এবং পার্লামেন্টে প্রবেশের অধিকার পেয়েছে. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” পার্টির প্রাকনির্বাচনী তালিকায় প্রথম স্থানে রয়েছেন, এবং তিনি মনে করেন যে, পার্টি এ নির্বাচনে উপযুক্ত ফলাফল প্রদর্শন করেছে. তাঁর কথায়, নতুন রাষ্ট্রীয় দুমার বিন্যাসে দেশের বাস্তব অবস্থা প্রতিফলিত হচ্ছে. মেদভেদেভ এ সম্ভাবনা বাদ দেন না যে, কিছু কিছু প্রশ্নে “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” পার্টিকে অন্যান্য পার্টির সাথে কোয়ালিশন চুক্তিতে আসতে হবে. তিনি মনে করেন যে, এটা দেশে গণতন্ত্র সুদৃঢ় হওয়ার প্রমাণ. নতুন রাষ্ট্রীয় দুমায় “ঐক্যবদ্ধ রাশিয়া” পার্টির সাথে কোয়ালিশন গঠনের সম্ভাবনা “ন্যায়পূর্ণ রাশিয়া” পার্টি বাদ দেয় না, বলেছেন এ পার্টির অন্যতম নেতা নিকোলাই লেভিচেভ. কমিউনিস্ট পার্টি পৃথক পৃথক প্রশ্নে “লিবেরাল ডেমোক্রাট” এবং “ন্যায়পূর্ণ রাশিয়া” পার্টির সাথে কোয়ালিশনে আসতে প্রস্তুত, বলেছেন “কমিউনিস্ট পার্টির” কেন্দ্রীয় কমিটির প্রথম উপ-সভাপতি ইভান মেলনিকোভ.