আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি হামিদ কার্জাই আশা করছেন যে, পাকিস্তান আগামী সপ্তাহে জার্মানির বন শহরে আফগানিস্তান সম্পর্কে যে আন্তর্জাতিক সম্মেলন শুরু হচ্ছে তা বয়কট করার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করবে. জার্মানির সাপ্তাহিক “শ্পিগেল” পত্রিকাকে মঙ্গলবার ইন্টারভিউ দিয়ে কার্জাই বলেন, “সীমানার ঘটনা সম্মেলনে পাকিস্তানের অংশগ্রহণ না করার কারণ হওয়া উচিত নয়. আমি আশা করি যে, তারা নিজেদের সিদ্ধান্ত পুর্বিবেচনা করবে এবং অবশেষে সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবে”. কার্জাই উল্লেখ করেন যে, এ প্রশ্নে নিজের স্থিতি সম্পর্কে তিনি টেলিফোন আলাপে বলেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রজা গিলানীকে. পাকিস্তান মঙ্গলবার আগে দেখা দেওয়া খবর সমর্থন করেছে যে দেশের সরকার পাকিস্তানী প্রহরা-চৌকির উপর ন্যাটো জোটের হেলিকপ্টার-আক্রমণের প্রতিবাদ স্বরূপ এ সম্মেলন বয়কট করতে চায়. ২৬শে ডিসেম্বর রাতে ন্যাটো জোটের কয়েকটি সামরিক হেলিকপ্টার আফগানিস্তানের ভূভাগ থেকে পাকিস্তানের আকাশ-সীমা লঙ্ঘন করে অনুপ্রবেশ করে এবং দেশের উত্তর-পশ্চিমে উপজাতিদের মোহমন্দ জেলায় প্রহরা-চৌকির উপর আঘাত হেনেছিল. অন্ততপক্ষে ২৪ জন সামরিক কর্মী নিহত হয়েছে.