মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীর কেন্দ্রীয় অধিনায়কমন্ডলী ২৪ জন পাকিস্তানী সৈনিকের মৃত্যুর পরিস্থিতির তদন্তে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের কর্তৃপক্ষের সাথে সহযোগিতার প্রস্তুতির কথা মঙ্গলবার ঘোষণা করেছে. অধিনায়কমন্ডলীর বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, কাবুল ও ইস্লামাবাদ “তদন্তে অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ পাবে”, জানিয়েছে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থা. তাছাড়া, কেন্দ্রীয় অধিনায়কমন্ডলী জানিয়েছে যে, এ ঘটনা তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল স্টিভেন ক্লার্ককে. পরিকল্পনা আছে যে, ন্যাটো জোটের প্রতিনিধিওতদন্তে অংশগ্রহণ করবে. আগে জানানো হয়েছিল যে, শনিবার ন্যাটো জোটের হেলিকপ্টার পাক-আফগান সীমানার কাছে পাকিস্তানের প্রহরা-চৌকির উপর আঘাত হেনেছিল. এ আক্রমণের ফলে পাকিস্তানের বাহিনীর ২৪ জন সৈনিক নিহত হয়েছে. উল্লেখযোগ্য বিষয় হল এই যে, ন্যাটো বাহিনী প্রহরা-চৌকির উপর গুলিবর্ষণ বন্ধ করে নি, এমনকি পাকিস্তানী তরফ থেকে এ খবর পাওয়ার পরেও যে, তারা “মিত্রশক্তির” উপর অগ্নিবর্ষণ করছে. জোটের প্রতিনিধিরা “অনিচ্ছাকৃত বিপর্যয়কর ঘটনার” জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেছে, তবে ইস্লামাবাদে উত্তর দেওয়া হয়েছে যে, উক্ত ক্ষেত্রে শুধু ক্ষমা প্রার্থনাই যথেষ্ট নয়.