0১৯১০-১৯৪৫ সালে কোরিয়ায় জাপানী ঔপনিবেশিক আধিপত্যের সময়ে সাধিত অপরাধের জন্য জাপানের ক্ষমা প্রার্থনা করা উচিত্. এ সম্বন্ধে শুক্রবার লিখেছে উত্তর কোরিয়ার মুখ্য পত্রিকা “নোদোন সিম্বুন” পত্রিকা. পিয়ং ইয়ংয়ে তাছাড়া এ স্থিরবিশ্বাস প্রকাশিত হচ্ছে যে, টোকিওর উত্তর কোরিয়াকে যথাযখ আর্থিক ক্ষতিপুরণ দেওয়া উচিত্, অন্যথায় জাপান চিরকালের মতো “কোরীয় জনগণের চরম শত্রু” থাকবে, বলা হয়েছে বিবৃতিতে. পত্রিকাটি মনে করিয়ে দিচ্ছে যে, কোরিয়ার দখলাবস্থার সময় জাপানী সাম্রাজ্যবাদীরা কোরিয়ার জনগণকে জাতীয় আত্মচেতনা থেকে বঞ্চিত করার চেষ্টা করেছিল, দেশের বৈষয়িক সঙ্গতি লুঠ করেছিল, সাংস্কৃতিক সম্পদ ধ্বংস করেছিল এবং চুরি করে নিয়ে গিয়েছিল. ৮০ লক্ষেরও বেশি লোককে জোর করে ধরে নিয়ে গিয়েছিল কয়লা-খনিতে এবং বিভিন্ন সামরিক প্রকল্পে কাজ করার জন্য. তাদের মধ্যে প্রায় ১০ লক্ষ জন মারা গিয়েছিল, লিখেছে “নোদোন সিম্বুন” পত্রিকা. উত্তর কোরিয়া একাধিকবার জাপানের কাছে দাবি করেছিল ক্ষমা প্রার্থনার এবং ক্ষতিপুরণ দেওয়ার. কিন্তু টোকিও একগুঁয়েভাবে “অতীতকালে জাপানী সাম্রাজ্যবাদীদের অপরাধ স্বীকার করতে চাইছে না”. জোর দিয়ে লিখেছে পত্রিকাটি.