ব্রিক্স গ্রুপের দেশগুলি (ব্রেজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্র) সিরিয়ার ব্যাপারে বাইরের হস্তক্ষেপ বাদ দেওয়ার দাবি করেছে. তাছাড়া তারা ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি শুধু রাজনৈতিক-কূটনৈতিক উপায়ে মীমাংসা করার পক্ষে মত প্রকাশ করেছে. তত্সংক্রান্ত ঘোষণাপত্র গৃহীত হয়েছে বৃহস্পতিবার মস্কোয় নিকট প্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকায় পরিস্থিতি সম্পর্কে ব্রিক্স দেশগুলির উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সাক্ষাতের ফলাফলের ভিত্তিতে. সিরিয়ায় আভ্যন্তরীন সঙ্কট মীমাংসার একমাত্র গ্রহণয়োগ্য ধরণ হল সমস্ত পক্ষের অংশগ্রহণে অবিলম্বে শান্তিপূর্ণ আলাপ-আলোচনা শুরু করা, যেমন বলা হয়েছে আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের উদ্যোগে, বলেছেন মস্কো সাক্ষাতের অংশগ্রহণকারীরা. এ প্রসঙ্গে লিবিয়ার ঘটনাবলির অভিজ্ঞতা অধ্যয়ন করা প্রয়োজন, যাতে নির্ধারণ করা যায়, ন্যাটো জোটের অধিনায়কত্বে কোয়ালিশনের অভিযান রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের তত্সংক্রান্ত ধারাগুলি পালন করে চালানো হয়েছিল কি না, বলা হয়েছে দলিলে. তাছাড়া ব্রিক্সের প্রতিনিধিরা ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি এবং পারস্য উপসাগরের অঞ্চলে নিরাপত্তা সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন. তাঁরা রাজনৈতিক সংলাপের পথে তেহেরানের পারমাণবিক কর্মসূচি সম্পর্কে মতভেদ দূর করার আহ্বান জানিয়েছেন এবং বলপ্রয়োগ ও বলপ্রয়োগের ভীতি প্রদর্শনের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করেছেন, জানিয়েছে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থা.