আরব রাষ্ট্রগুলির লীগ এবং সিরিয়ার নেতৃবৃন্দ সিরিয়ায় বিদেশী পর্যবেক্ষকদের পাঠানোর ব্যাপারে আপোষে আসতে পারে নি. আরব লীগ, যা ১৬ই নভেম্বর সিরিয়াকে তিন দিনের মধ্যে অগ্নি সংবরণের চুক্তি পালনের এবং বিরোধীপক্ষের সাথে আলাপ-আলোচনা শুরু করার জন্য চরম দাবি পেশ করেছে, এ সংস্থায় সিরিয়ার সদস্যপদ স্থগিত রেখেছে. একই সঙ্গে, লীগ নিজের পরবর্তী ক্রিয়াকলাপ নির্ধারণ করে নি, উল্লেখ করেছে “রয়টার” সংবাদ এজেন্সি. সিরিয়া সম্পর্কে লীগের জরুরী বৈঠক ২৪শে নভেম্বর কায়রো-তে অনুষ্ঠিত হবে. আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, লীগ সিরিয়া প্রশ্নের শান্তিপূর্ণ মীমাংসায় আগ্রহী. নিজের তরফ থেকে সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ গত রবিবার বলেন যে, সিরিয়া বাইরে থেকে চাপ বৃদ্ধির আশা করছে, তবে সিরিয়া পশ্চিমের এবং কিছু আরব দেশের চাপে মাথা নিচু করবে না, যারা সিরিয়ার বর্তমান লেতৃমন্ডলীর পদত্যাগ অর্জনের চেষ্টা করছে. দামাস্কাসে, রবিবার সিরিয়ার ক্ষমতাসীন “বাআস” পার্টির দপ্তরে গ্রেনেড-থ্রোয়ার থেকে অগ্নিবর্ষণ করা হয়, প্রত্যক্ষদর্শীদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে “রয়টার” সংবাদ এজেন্সি. এর জন্য দায়িত্ব গ্রহণ করেছে তথাকথিত “স্বাধীন সিরিয়ার বাহিনী” – এটি সামরিক সংস্থা, যা গঠিত হয়েছে বিরোধীপক্ষের দিকে চলে আসা সিরিয়ার সৈন্যবাহনী ত্যাগ করা প্রাক্তন সৈনিকদের নিয়ে. আসদ ঘোষণা করেছেন যে, অস্ত্র হাতে অভিযান চালানো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে বলপ্রয়োগ করা ছাড়া তাঁর অন্য কোনো উপায় নেই.