ইরানের উপর সামরিক আঘাত সারা পৃথিবীর অর্থনীতির ক্ষতি সাধন করতে পারে, বলেছেন মার্কিনী প্রতিরক্ষামন্ত্রী লেওন পানেট্টা. ইরানের উপর আক্রমণের ক্ষেত্রে অর্থনৈতিক কুপরিণতি দেখা দেবে এবং “তা শুধু আমাদের অর্থনীতিই নয়, বিশ্ব অর্থনীতিকেও প্রভাবিত করতে পারে”, পানেট্টার বিবৃতি উদ্ধৃত করেছে “রয়টার” সংবাদ সংস্থা. আশা করা হচ্ছে যে, পেন্টাগনের প্রধান ইরানী সমস্যা আলোচনা করবেন ইস্রাইলী প্রতিরক্ষামন্ত্রী এখুদ বারাকের সাথে, কানাডার হ্যালিফ্যাক্স শহরে আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা সংক্রান্ত বৈঠকের সময়. এর প্রাক্কালে “ডেইলি বিস্ট” ইন্টারনেট পোর্টাল মার্কিনী গোয়েন্দা বিভাগের এক উত্সকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে যে, ইরানের উপর আঘাত হানার ক্ষেত্রে ইস্রাইল শুধু পারমাণবিক প্রকল্পই নয়, বেসামরিক লক্ষ্যও আক্রমণ করতে পারে, ঐ দেশে বিদ্যুত্ সরবরাহ, টেলিফোন যোগাযোগ এবং ইন্টারনেট যোগাযোগ ছিন্ন করতে পারে. ইস্রাইলের উপ-প্রধানমন্ত্রী মোশে ইয়ালান বৃহস্পতিবার বলেছেন যে, ইরান সমস্যার সামরিক মীমাংসা খুবই সম্ভব. সেই সঙ্গে তিনি জোর দিয়ে বলেন, “সামরিক মীমাংসা – এ হল শেষ ব্যবস্থা, যা গৃহীত হবে, যখন অন্যান্য সব ব্যবস্থা বিফল হবে”, ইস্রাইলী মন্ত্রীর কথা উদ্ধৃত করেছে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থা. আগে জানানো হয়েছিল যে, ইস্রাইলের কাছে ইরানের পারমাণবিক প্রকল্পগুলির উপর বিমান আঘাত হানার পরিকল্পনা প্রস্তুত আছে.