রাষ্ট্রীয় সেনাবাহিনী ও বিরোধীপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে সিরিয়ায় ১১ জন নিহত হয়েছে. আজ সিরিয়ার মানবাধিকার রক্ষাকর্মীদের উদ্ধৃতি দিয়ে আল-জাজির দূরদর্শন চ্যানেল এই খবর দিয়েছে. মানবাধিকার রক্ষাকর্মীরা জানিয়েছেন, যে হোমস শহরের অনতিদূরে এল-কাসীর শহরে রাষ্ট্রীয় সেনাবাহিনী ও সশস্ত্র বিরোধীদের মধ্যে প্রবল সংঘাত ঘটেছে. সামরিক অভিযানের আওতায় সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সেনাবাহিনী হোমস শহরের বাবা আমরু নামক পাড়া দখল করেছে. দেশের কয়েকটি অঞ্চলে গতরাতে সেনাবাহিনী হানা দিয়েছে এবং ধরপাকড় করেছে. সিরিয়ার কর্তৃপক্ষ হোমস শহরে সামরিক অভিযান সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেনি. তবে সিরিয়ার সংবাদমাধ্যমগুলি বারংবার ঐ শহরে সন্ত্রাসবাদী গুন্ডারা পুলিশ ও সাধারন বাসিন্দাদের খুন করছে বলে জানাচ্ছে. শহরবাসীরা সন্ত্রাসবাদী গুন্ডাদের হাত থেকে তাদের রেহাই দেওয়ার আহ্বাণ জানাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে. অন্যদিকে আরব রাষ্ট্রলীগ ১২ই নভেম্বর, শনিবার সিরিয়ার ব্যাপারে বিশেষ অধিবেশন ডেকেছে. যদি দামাস্কাস আরব রাষ্ট্রলীগের দাবীমাফিক অস্ত্রসম্বরন না করে, তাহলে সিরিয়া আরব রাষ্ট্রলীগের সদস্যপদ হারাতে পারে. জাতিসংঘ প্রদত্ত তথ্য অনুযায়ী গত ৭ মাসে হাঙ্গামা চলাকালীন সিরিয়ায় ৩ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে.