গতকাল গ্রীসের দুই মুখ্য রাজনৈতিক পার্টি নতুন মোর্চ্চা মন্ত্রীসভার প্রধান কে হবে, সে ব্যাপারে ঐক্যমতে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়েছে এবং আলোচনা আজও চলবে. এখনো কে প্রধানমন্ত্রীর পদে নিযুক্ত হবে ও মন্ত্রীসভায় কারা আসীন হবে, তা জানা যায়নি. আজ দুপুরে বর্তমান মন্ত্রীসভার অধিবেশন হওয়ার কথা. প্রধানমন্ত্রী গেওর্গিওস পাপান্দ্রেউ ঘোষণা করেছেন, যে নতুন মন্ত্রীসভা গঠণ করার পরে তিনি পদত্যাগ করতে প্রস্তুত. গত সপ্তাহান্তে পাপান্দ্রেউ ও বিরোধীপক্ষের নেতা আন্তোনিস সামারাস নতুন সরকার নির্বাচনের আয়োজন করবে, এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন. কিন্তু নির্বাচন হবে শুধু তার পরেই, যখন এথেন্স গত ২৬শে অক্টোবর ইউরোপীয় সংঘের শীর্ষবৈঠকে দ্বিতীয় কিস্তির ঋণ পাওয়ার জন্য গৃহীত সব শর্ত পূরণ করবে. দুই পার্টিই মনে করে, যে নির্বাচনের সবচেয়ে উপযুক্ত তারিক হল – ১৯শে ফেব্রুয়ারি.