পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় পশ্চিমী প্রচার মাধ্যমের এ খবর খন্ডন করেছে যে, ইস্লামাবাদ নাকি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ওয়ারহেডের প্রকৃত সংখ্যা লুকোচ্ছে. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে রবিবার প্রচারিত পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে. পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্থিরবিশ্বাস প্রকাশিত হচ্ছে যে, এ হল ইচ্ছাকৃত প্রচার অভিযানের অংশ, যার উদ্দেশ্য হল – জনমতকে বিভ্রান্ত করা. আগে মার্কিনী “অ্যাটলান্টিক” পত্রিকা জানিয়েছিল যে, এ বছরের মে মাসে “আল-কাইদার” নেতা উসামা বিন লাদেনের হত্যার পরে পাকিস্তানের বাহিনী নিজের পারমাণবিক ওয়ারহেডগুলি ক্রমেই বেশি করে সামরিক প্রকল্পগুলির মাঝে রাখা শুরু করেছে, যাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে নিজের পারমাণবিক অস্ত্রের সংখ্যা লুকোনো যায়. পত্রিকাটির নিশ্চয়োক্তি অনুযায়ী, রকেট এবং ওয়ারহেডগুলি প্রায়ই ট্রাকে করে যথেষ্ট প্রহরা ছাড়া রাস্তা দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় জোড়াই অবস্থাতে, অংশে অংশে নয়. দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতে, এমন তথ্য প্রচার করছে “পাকিস্তানের অ-বন্ধুসুলভ” শক্তি. পশ্চিমী প্রচার মাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, পাকিস্তানের হাতে ইতিমধ্যে রয়েছে ১১০টি পারমাণবিক ওয়ারহেড.